হোম সর্বশেষ বাংলাদেশে দুইজনের শরীরে ওমিক্রন শনাক্ত

বাংলাদেশে দুইজনের শরীরে ওমিক্রন শনাক্ত

জিম্বাবুয়ে ফেরত দুই নারী ক্রিকেটারের দেহে মিলেছে এ ভাইরাস।

0

প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত হয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর নিশ্চিত করেছে এই সংক্রমণের খবর।   

জানা গেছে, আক্রান্তরা জিম্বাবুয়ে ফেরত দুইজন নারী ক্রিকেটার।

রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ডা. এএসএম আলমগীর দ্য বিজনেস স্ট্যান্ডার্ডকে জানিয়েছেন, গত ৬ই ডিসেম্বর বাংলাদেশের দুইজন নারী ক্রিকেটার কোভিড পজিটিভ শনাক্ত হন। কয়েকদিন পর তাদের দেহে করোনার ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টটি শনাক্ত হয়। 

উল্লেখ্য, বাংলাদেশের জাতীয় নারী ক্রিকেট দল সম্প্রতি বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে অংশ নিতে জিম্বাবুয়ে গিয়েছিল।

এদিকে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক আজ শনিবার গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, “দুই ক্রিকেটারই বর্তমানে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। তাদের একাধিক টেস্ট করানো হচ্ছে।” 

“তাদের জ্বর রয়েছে তবে অবস্থা এখনো স্থিতিশীল”, যোগ করেন জাহিদ মালেক।

প্রতিবেশী দেশ ভারতে ওমিক্রনের সংক্রমণ বেড়ে চলছে। তাই বাংলাদেশে এর সংক্রমণ এড়াতে সীমান্তে নিরাপত্তা জোরদার করার পাশাপাশি ভ্রমণ বিষয়ে সীমান্ত ও বিমানবন্দরে কড়াকড়ি আরোপের বিষয়টি আগেই আলোচনায় উঠে এসেছে।

চলতি বছরের নভেম্বরের ২৪ তারিখে SARS-CoV-2 এর একটি নতুন ভ্যারিয়েন্টের কথা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে জানানো হয়। নতুন এই ভ্যারিয়েন্টটি গত ১১ নভেম্বর সর্বপ্রথম শনাক্ত করা হয়েছিল আফ্রিকার দেশ বতসোয়ানায়। তিন দিন বাদেই দক্ষিণ আফ্রিকায় এটি শনাক্ত হয়। ২৬ নভেম্বর বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা নতুন এই ভ্যারিয়েন্টের নাম দেয়- ওমিক্রন।

দক্ষিণ আফ্রিকার একদল বিজ্ঞানীর মতে, করোনাভাইরাসের নতুন এই ভ্যারিয়েন্ট নিজেকে তীব্রমাত্রায় পাল্টাতে (মিউটেশনে) সক্ষম। দক্ষিণ আফ্রিকায় করোনাভাইরাসের ভ্যারিয়েন্টগুলোর মধ্যে ওমিক্রন ইতোমধ্যে ছড়িয়ে পড়েছে। সেখানে ওমিক্রনের বিস্তার ঘটেছে খুব দ্রুত। দেশটির নয়টি প্রদেশের সাতটির মধ্যেই ধরনটিতে আক্রান্ত রোগীর সন্ধান পাওয়া গেছে।