হোম আন্তর্জাতিক অমিক্রনে গুরুতর অসুস্থতা থেকে উচ্চমাত্রায় সুরক্ষা দেয় টিকা: সিডিসি

অমিক্রনে গুরুতর অসুস্থতা থেকে উচ্চমাত্রায় সুরক্ষা দেয় টিকা: সিডিসি

0

করোনাভাইরাসের অমিক্রন ধরনে গুরুতর অসুস্থতা থেকে উচ্চমাত্রায় সুরক্ষা দেয় দুই ডোজ টিকা ও বুস্টার ডোজ। যুক্তরাষ্ট্রের রোগনিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ সংস্থার (সিডিসি) বড় পরিসরে পরিচালিত এক গবেষণায় এমন তথ্য জানা গেছে। স্থানীয় সময় গতকাল শুক্রবার এ তথ্য জানানো হয়। খবর এএফপির

সিডিসি গত বছরের ২৬ আগস্ট থেকে এ বছরের ৫ জানুয়ারি পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের ১০টি অঙ্গরাজ্যে তিন লাখেরও বেশি জরুরি বিভাগ, ক্লিনিক ও হাসপাতাল থেকে তথ্য সংগ্রহ করেছে।

সিডিসির গবেষণা প্রতিবেদন বলছে, ডেলটা ধরনের সংক্রমণ বেশি থাকার সময় দেখা গেছে, দুই ডোজ টিকা নেওয়ার পরে গুরুতর অসুস্থতা থেকে সুরক্ষা দিতে টিকার কার্যকারিতা ছিল ১৪ থেকে ১৭৯ দিন পর্যন্ত। আর দ্বিতীয় ডোজ টিকা নেওয়ার ১৮০ দিনেরও বেশি সময় পর্যন্ত কার্যকারিতা থাকে ৮১ শতাংশে। বুস্টার ডোজ নেওয়ার ১৪ বা তার বেশি দিন পরে কার্যকারিতা থাকে ৯৪ শতাংশ।

অমিক্রনের সংক্রমণ বেশি থাকার সময় দ্বিতীয় ডোজ টিকা নেওয়ার ১৪ থেকে ১৭৯ দিন পর্যন্ত কার্যকারিতা ছিল ৮১ শতাংশ। দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার পর ১৮০ দিন পর্যন্ত কার্যকারিতা ৫৭ শতাংশ আর বুস্টার ডোজ নেওয়ার ১৪ বা তারও বেশি দিন পর পর্যন্ত কার্যকারিতা ছিল ৯০ শতাংশ।

যুক্তরাষ্ট্রের ২৫টি অঙ্গরাজ্য থেকে নেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে সিডিসির আরেক গবেষণা প্রতিবেদন বলছে, ডেলটা ধরনের সংক্রমণ বেশি থাকার সময় টিকার কার্যকারিতা ৯৩ শতাংশ থেকে কমে ৮০ শতাংশে পৌঁছেছে। তবে মৃত্যু থেকে সুরক্ষা পাওয়া গেছে ৯৪ শতাংশ।

গবেষণা প্রতিবেদনে আরও দেখা গেছে, জুলাই থেকে নভেম্বর পর্যন্ত টিকা পাওয়ার পরও করোনায় মৃত্যুহার বেড়েছে। তবে যাঁরা টিকা নেননি, তাঁদের মধ্যে এই মৃত্যুহার ১৬ গুণ বেশি। অক্টোবর থেকে নভেম্বর পর্যন্ত যাঁরা টিকা নেননি, তাঁদের করোনায় মৃত্যুর ঝুঁকি ৫০ গুণ বেশি ছিল।